19 August- 2022 ।। ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিদায় মানবতার ফেরীওয়ালা নির্মল রঞ্জন গুহ

মোঃআমিনুল ইসলাম

নির্মল রঞ্জন গুহ,শুধু একটি নাম বা বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নয় বরং স্বেচ্ছায় কীভাবে নিজেকে বিলিয়ে দেয়া যায় তার একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত এই মানুষটি।যিনি তার সফল কার্যক্রম ও মানবসেবা দিয়ে মানুষের মন জয় করে নিয়েছেন। পেয়েছেন মানবতার ফেরীওয়াল উপাধি।
করোনা মহামারিতে সারাদেশে যখন অস্বস্তিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয় তখন জীবন বাজি রেখে সর্বপ্রথম নির্মল গুহের নেতৃত্বে
সর্ব প্রথম বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সারাদেশের মানুষকে সচেতন করতে এবং আতংকিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে কেন্দ্রীয়ের রেকর্ডিং বার্তা সারাদেশে পৌঁছিয়ে দিয়েছেন। এরপর বিনামূল্যে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরনের উদ্দ্যোগ গ্রহন, ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থানে বিতরনে অংশগ্রহণ করেন।

যখন সারাদেশে সরকারী সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হলো, কর্মহীন হয়ে পড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ সে সময় তারা ত্রান বিতরণ কর্মসূচি হাতে নেন ৷ কেন্দ্রীয় থেকে শুরু করে প্রতিটি জেলা, উপজেলা, প্রতিটি ইউনিটের নেতাকর্মী এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে। সংগঠনের সভাপতি নির্মল গুহ নিয়মিত ঢাকা সহ, দোহার-নবাবগন্জ , চট্রগ্রামের অভিমুখে যাত্রা করে মাগুড়া,কুমিল্লা সহ বিভিন্ন স্থানে ত্রান বিতরণ করেন। সাধারণ সম্পাদক ঢাকার বিভিন্ন জায়গায়, কলাবাগান মাঠ,লেক সার্কাসের গলি, রাসেল স্কয়ার, এলিফ্যান্ট রোড,ঢাকা কলেজ,সাইন্সল্যাব সহ বিভিন্ন স্থানে অংশগ্রহণ করেন।

পরবর্তী সারাদেশে খাদ্য দ্রব্য বিতরণ,
রমজানে ইফতার বিতরণ সহ জনসেবামূলক কাজে সর্বদাই নিবেদিত ছিলেন এই মানুষটি।দেশের ক্রান্তিলগ্নে ঘর ছেড়ে নেমে পরেছেন, পৌঁছে গেছেন তৃণমূল ও ছিন্নমূল মানুষের কাছে।এছাড়া বন্যা,দুর্যোগকালীন সময় সহ দেশের বিভিন্ন সমস্যায় ঘরে বসে থাকেননি এই মানুষটি। একাধারে নিজে স্বশরীরে ও সংগঠনের বিভিন্ন অঞ্চল ও পর্যায়ের নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছেন সহযোগিতা। যা আকৃষ্ট করেছে বাঙালিকে।ফলে তিনি মানবতার ফেরিওয়ালা উপাধিতে ভূষিত হন।

২০১৯ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হন তিন।
মাত্র আড়াই বছরের মধ্যে তিনি স্বেচ্ছাসেবক লীগকে সুসংগঠিত করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনটিকে প্রথম কাতারে নিয়ে আসেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬.৩০ ঘটিকায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এর একটি বিশেষ ফ্লাইটযোগে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। নির্ল রঞ্জন গুহের মরদেহ রাতে ফ্রীজিং এম্বুলেন্সে তার সেগুনবাগিচার বাসভবনে রাখার পর ১ জুলাই শুক্রবার সকাল ১০ টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর টিএসসি প্রাঙ্গণ থেকে শোক মিছিলসহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।শোকমিছিল শেষে শহীদ মিনারে তার লাশ রাখা হয়।নির্মল রঞ্জন গুহকে শেষবারের মতো একনজর দেখতে লাখো মানুষেরা ভীর জমান।তার সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ,ঢাকা মহানগর উত্তর দক্ষিনের সক থানা ও ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ সহ দেশের বিভিন্ন মহানগর,জেলা,থানার নেতৃবৃন্দ শোক মিছিলে অংশগ্রহণ ও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।সকাল ১১ টা থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন শুরু হয়।শুরতেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শ্রদ্ধা নিবেদন করেন,পরবর্তীতে দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ সহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
ওবায়দুল কাদের বলেন,”স্বচ্ছতা ও মানবতাকে প্রাধান্য দিয়ে দল ও দেশের মানুষের জন্য নির্মল রঞ্জন গুহ আত্মত্যাগের রাজনীতি স্মরণীয় হয়ে থাকবে।”
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বলেন” নির্মল রঞ্জন গুহ ছিলেন একজন পরিচ্ছন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। সারা জীবন তিনি মানুষের কল্যাণে সচেষ্ট ছিলেন। তার সৎ গুনাবলি তৃণমূলের নেতা-কর্মীদেরও আকৃষ্ট করতো।”
উল্লেখ্য বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম শ্রদ্ধা নিবেদন মঞ্চে সার্বক্ষণিক উপস্থিত থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠান সম্পন্ন করেন।অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক
আফজালুর রহমান বাবু।
এছাড়া দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তিত্ব, সামাজিক,সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিবর্গ,বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন সহ সর্বসাধারণ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।দুপুর সাড়ে বারোটায় এ শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শবদেহ ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ এ নিয়ে যাওয়া হয়।সেখান থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষ করে তার প্রিয় জন্মস্থান দোহারে নিয়ে যাওয়া হয় ও শেষ কৃত্য সম্পন্ন করা হয়।

বুধবার নির্মল রঞ্জন গুহ সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরলোক গমন করেন। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর। তিনি স্ত্রী ও দুই ছেলেসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ী রেখে গেছেন।

Sharing is caring!





More News Of This Category


বিজ্ঞাপন


প্রতিষ্ঠাতা :মোঃ মোস্তফা কামাল

প্রধান সম্পাদক : মোঃ ওমর ফারুক জালাল

সম্পাদক: মোঃ আমিনুল ইসলাম(আমিন মোস্তফা)

নির্বাহী সম্পাদক: এ আর হানিফ
কার্যালয় :-
৫৩ মর্ডান ম্যানশন (১২ তলা)
মতিঝিল, ঢাকা-১০০০

ইমেইল:ajsaradin24@gmail.com

টেলিফোন : +8802-57160934

মোবাইল:+8801725-484563,+8801942-741920
টপ