2 July- 2022 ।। ১৯শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নেতাদের অন্তঃদ্ধন্দে উন্নয়ন বঞ্চিত পৌর এলাকার মানুষ

পর্ব-১

ক্ষতাসীন দল আওয়ামী লীগের টানা তিন বার মেয়াদি সরকারের ১৪ বছর চলছে।গ্রাম হবে শহর শ্লোগানকে সামনে রেখে ক্ষমতায় আসা এ দলটি বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ এর রুপায়নে সফলতা দেখাতে সক্ষম হয়েছে ।সাধারণ মানুষের দ্বাবি দেশের সাধারণ মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়নে রাষ্ট্রপ্রধান শেখ হাসিনার নিরলস পরিশ্রমের ফলে বাংলাদেশ আজ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে শুধুমাত্র স্থানীয় নেতাদের গ্রুপিংয়ের খেসারত দিতে হচ্ছে তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের,দিতে হচ্ছে সাধারণ মানুষদের।অথচ তৃণমূলই আওয়ামী লীগের মূল চালিকা শক্তি হিসেবে সর্বজন স্বীকৃত। বিশেষ করে শহরতলীতে থাকা মানুষদের বেশীটা খেসারত দিতে হচ্ছে। জরাজীর্ণ রাস্তাঘাট,বিষাক্ত খাল,মরা খাল,নদী ভাঙন,সুপেয় পানির অভাব, বর্ষায় রাস্তাঘাট তলিয়ে যাওয়া সহ এ জাতীয় নানাবিধ সমস্যার কারণে শহরতলীতে থাকা মানুষের জীবন আজ আজ হুমকির মুখে। প্রতিনিয়ত নানান রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন তারা।কাগজ কলমে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অধীনস্হ এ সতন্ত্র সায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানটিতে বসবাসরত উচ্চমাত্রার জীবনযাপনের মানুষদের দ্যাখানো হলেও বাস্তবে এর রুপরেখা সম্পূর্ণ ভিন।পৌর এলাকার বাসিন্দারা মনে করছেন তাদের শুধুমাত্র হোল্ডিং ট্যাক্স, ভূমির উর্দ্ধ কর,জমি বেচাকেনায় পৌর কর,ব্যবসা করতে ট্রেড লাইসেন্স এর উচ্চমূল্য,সাইনবোর্ড ট্যাক্স,প্লান পাশ এর ফি সহ নানাবিধভাবে টাকা দেয়ার জন্য যেন পৌর এলাকায় বসবাস তাদের!
উপজেলা পরিষদ কাজ করছে ইউনিয়নে।এমনকি উপজেলা পরিষদ থেকে টিআার,কাবিটা,এডিবি বরাদ্দের পুরোটাই চলে যাচ্ছে ইউনিয়নে।তাহলে আমরা কেনো উপজেলা নির্বাচনে ভোট দেই?আমাদের ভোটের প্রয়োজন কী?

বিদেশি সাহায্য,এডিবির বরাদ্দ,জাইকার বরাদ্দ সহ নানাবিধ প্রকল্পে ইউনিয়ন পরিষদে বসবাসরত মানুষদের প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে। অথচ বাস্তবিক অর্থে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ে জীবনমানের উন্নয়নে অনেকটা পিছিয়ে পৌর এলাকার নাগরিকরা।পৌরসভাগুলোকে সিটি হিসেবে বিবেচনা করার ফলে এসকল অর্থ সহায়তা চলে যাচ্ছে অপ্রয়োজনীয় স্থলে।

বিশেষ করে প্রথম শ্রেণীর পৌর এলাকাগুলোতে এ সমস্যা বেশী হচ্ছে। অথচ দ্যাখার যেনো কেউ নাই!

বসবাসের অনুপোপযোগী হয়ে উঠছে পৌর এলাকাগুলো।

এ সমস্যার কারণ কী?
দীর্ঘদিন ধরে জট লেগে থাকার যথেষ্ট কারণ রয়েছে বলে মতামত ব্যক্ত করেন পৌরসভাগুলোতে বসবাসরত নাগরিক,সুশীল সমাজ সহ,ব্যবসায়ী, পৌরনীতিবিধ,সমাজসেবী প্রতিষ্ঠান, বুদ্ধিজীবী সহ বিভিন্ন শ্রেণির ব্যক্তিবর্গ।

রাজনৈতিক কোন্দল ও গ্রুপিঃ

পৌরসভা প্রধানদের দ্বায়বদ্ধতাহীনতাঃ

এনওসি জটিলতাঃ

কাউন্সিলরদের সমন্বয়হীনতা ও গ্রুপিং ঃ

বিদেশি সহায়তা না পাওয়াঃ

উপজেলা পরিষদ এর মাধ্যমে ক্ষুদ্র কাজের প্রকল্প বাস্তবায়নঃ

জবাবদিহিতার সংকটঃ

বিস্তারিত আসছে…….

Sharing is caring!





More News Of This Category


বিজ্ঞাপন


প্রতিষ্ঠাতা :মোঃ মোস্তফা কামাল

প্রধান সম্পাদক : মোঃ ওমর ফারুক জালাল

সম্পাদক: মোঃ আমিনুল ইসলাম(আমিন মোস্তফা)

নির্বাহী সম্পাদক: এ আর হানিফ
কার্যালয় :-
৫৩ মর্ডান ম্যানশন (১২ তলা)
মতিঝিল, ঢাকা-১০০০

ইমেইল:ajsaradin24@gmail.com

টেলিফোন : +8802-57160934

মোবাইল:+8801725-484563,+8801942-741920
টপ