25 October- 2021 ।। ৯ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ভুলে যাই যে নির্মম বাস্তবতা– আলো ভেবে আলেয়ার পিছে ছূটে চলা

।।শ ম রেজাউল করিম।।

প্রথম শতাব্দীতে রোম সাম্রাজ্যের অংশ ছিল এই অঞ্চল হেগরা।‌এখন সৌদি আরবের মদিনা থেকে ৪০০ কি মি দুরে। শতশত বিস্ময়কর পাহাড়। এই পাহাড়ে অকল্পনীয় ভাবে গর্ত খুঁড়ে বসবাস করতো এক মানবজাতি। হাজার হাজার বছরের পুরোনো স্মৃতি এখনো দাড়িয়ে আছে মরুভূমির মধ্যে। শুধু নেই সেই বসবাসরত মানুষ ও তাদের অধস্তন গোষ্ঠী। এখন ভীতিকর ও বিস্ময়কর পরিত্যাক্ত পাহাড় হাজার হাজার বছর পূর্বের সাক্ষ্য বহন করে চলছে। কেউ তাদের মনে রাখেনি, যারা কঠিন পাহাড় কেটে বসতি স্থাপন করেছিল। প্রাচীন যুগ থেকে নিকট অতীতে যারা বিশাল বিশাল অট্টালিকা ও বিত্তবৈভব রেখে গেছেন, তাদের নাম কি জানেন উত্তরসুরীরা? তিন পুরুষ পুর্বের পিতা মহ বা মাতা মহের নাম কজনে জানে? মা বাবার অসুস্থতা, এমনকি মৃত্যুর পরে কবর দিতে অনেক বিখ্যাত ব্যাক্তির সন্তানেরা আসেন না। মা বাবাকে কবরে ভিজে মাটিতে রাখার সময় অনেক সন্তান নিজে দুরে দাঁড়িয়ে শুধু তদারকি করেন,হাতে মাটি স্পর্শ করতে দ্বিধা করেন। বৃষ্টি এলে দ্রুত সরে যান। তিনি কি ভেবে দেখেন, কত কষ্ট তার বাবা মা করেছেন তাকে জন্ম দিতে ও বড় করতে? স্ত্রী পুত্র কন্যা নিয়ে মহা আরামে থাকা কতজন সন্তান তার বৃদ্ধ ও রোগাক্রান্ত বাবা মাকে কাছে রেখে সেবা করেন ঐ ভাবে, যেভাবে তার ছোট্ট বেলায় মা বাবা করেছিলেন? অথচ, ভালো খাবার না খেয়ে,আরামে না থেকে সীমাহীন কষ্ট করে সন্তানকে লেখা পড়া করানো সহ ধনসম্পদের পাহাড় গড়ে রেখে যান সন্তানের জন্য। কতজন উত্তরাধিকারী তার পূর্বপুরুষের কথা মনে রাখেন এবং জন্য দোয়া করেন? সর্বোচ্চ, মা বাবা, দাদা দাদী? অথচ,এর পূর্বের জেনারেশন এর কারো নামও হয়তো জানেন না। একবার ভেবে দেখি, অসহায় বাবা মায়ের পাশে কতটা সময় দিয়েছি? নিজের লাক্সারিয়াস বাসায় এনে কতদিন রেখেছি? নিজ সন্তান, স্ত্রী পূত্র কন্যা ও অন্যান্য প্রিয়জনদের সাথে কতো আদরে ভরা সুন্দর সুন্দর কথা বলেছেন,আদর যত্ন করেছেন, তার এক ভাগও কি মা বাবার সাথে ? কতটা কেয়ারিং (যত্ন) করেছি ? ???? সন্তান অসুস্থ হলে না ঘুমিয়ে সারাদিন রাত তার পাশে থাকেন মা বাবা, সেই মা বাবা অসুস্থ হলে আমরা কতটা করি ? এটাই বাস্তবতা। মা বাবা, দাদা দাদী সহ পূর্ব পূরুষদের কবরে নিজে পরিচর্যা করেন কতটা? নিজ বা বাবার নামে কোন প্রতিষ্ঠান এর নাম করন করার সময় কি মনে করি যে, আমাদের মা বাবার যারা মা বাবা ছিলেন, তাদের জন্য দোয়া করার জন্য কি অন্য কেউ আছে, বা তাদের নাম অমর করে কে রাখবে? এ ভাবেই জ্ঞাতসারেই আমরা হারিয়ে ফেলি তাদেরকে, যাদের থেকে ক্রমান্বয়ে আজকের আমি। অথচ, একবারও ভেবে দেখিনা ক’দিন পরে আমারো একই পরিনতি হবে। আমার কবর এক সময়ে হারিয়ে যাবে কালের গহ্বরে। কেউ মনে রাখবেনা। বিত্তবৈভব ভোগ করা মানুষেরাও জানবে না এসবের উৎসের অতীত। আমরা কি একা একা ভেবে দেখি যে, কতটা ন্যায় ও কতটা অন্যায় করছি ,অপ্রয়োজনে অপরের ক্ষতি করছি ? ধনসম্পদের চেয়ে বেশি প্রয়োজন ধর্মীয় মূল্যবোধ ও নীতি নৈতিকতার আদর্শিক শিক্ষার। আসুন আমরা স্রষ্টাকে স্মরনকরি এবং আত্মশুদ্ধি ও কল্যানের পথে এগিয়ে যাই।পরম করুনাময় আমাদের সহায় হোন।


লেখকঃ কলামিস্ট,রাজনীতিবিধ,বিজ্ঞ আইনজীবী,দার্শনিক,সমাজ সংষ্কারক,
মন্ত্রী, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

Sharing is caring!





More News Of This Category


বিজ্ঞাপন


প্রতিষ্ঠাতা :মোঃ মোস্তফা কামাল

প্রধান সম্পাদক : মোঃ ওমর ফারুক জালাল

সম্পাদক: মোঃ আমিনুল ইসলাম(আমিন মোস্তফা)

নির্বাহী সম্পাদক: এ আর হানিফ
কার্যালয় :-
৫৩ মর্ডান ম্যানশন (১২ তলা)
মতিঝিল, ঢাকা-১০০০

ইমেইল:ajsaradin24@gmail.com

টেলিফোন : +8802-57160934

মোবাইল:+8801725-484563,+8801942-741920
টপ