23 September- 2023 ।। ৯ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

অনুশোচনা (প্রবন্ধ)

শামসুল আরেফীনঃ
প্রতিদিন ডায়বেটিস কন্ট্রোল করার খাবার আর ভালো লাগে না, তাই আজ বন্ধের দিন সরওয়ার সাহেব ভিন্ন রকম নাস্তার পসরা সাজিয়ে বসেছেন। তিনি সরকারি কর্মকর্তা। এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক। পৈতৃক সূত্রে না হলেও নিজের প্রতিভা গুণে আজ সে ভালোমানের সম্পদশালী।
নাস্তা মুখে তোলার আগেই বেজে উঠলো মুঠোফোনটি। খুব কাছের কলিগ সিরাজ সাহেবের ফোন। অসময়ে ফোন পেয়ে অবাকই হলেন। রিসিভ করে দুই মিনিট কথা বলে নিস্তব্ধ হয়ে গেলেন। স্ত্রীর প্রশ্নে ঘোর কাটলো তার।
স্ত্রীকে বললেন যে, আমাদের সাজিদ সাহেব আর নেই। কিছুক্ষণ আগে হার্ট এ্যাটাকে মারা গেছেন। সিরাজ সাহেব তা জানালেন মাত্র।

নাস্তা না করেই বেড়িয়ে গেলেন তিনি সাজিদ সাহেবের লাশ দেখতে। চোখের কোনে জল জমা হয়, টিস্যু দিয়ে মুছেন আর ভাবেন সাজিদ সাহেবের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা গুলোর স্মৃতি।
ছেলেটাকে পিএইচডি করতে দেশের বাইরে পাঠাবেন, বড় মেয়েকে যে ফ্ল্যাটটা কিনে দিয়েছেন সে এপার্টমেন্টেই আরেকটা ফ্ল্যাট বুকিং দিবেন শীঘ্রই, সেটা ছোট মেয়ের বিয়ের পর ছোট মেয়েকে গিফট করবেন।
চোখের জল মুছতে মুছতে কানে বাজলো ড্রাইভারের কন্ঠ – ‘স্যার, চলে এসেছি’।

মৃতের বাড়ির বিভিন্ন রকম কান্নার শব্দে বুকটা ভারী হয়ে আসছে তার, একটু গেটের বাইরে গিয়ে দাঁড়ালেন সরওয়ার সাহেব।
প্রতিবেশী অনেকেই মরহুম সাজিদ সাহেবের ইতিবাচক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলছেন।
হঠাৎ একজন বলে উঠলেন-
আহা, কি হবে এতো টাকা দিয়ে?
এখন হিসাবতো একাই দিতে হবে।
আরেকজন বল্লো- মৃত ব্যক্তি বিষয়ে এসব আলোচনা করতে হয় না।

সরওয়ার সাহেব জুমার নামাজ ও জানাজা শেষে বাসায় এসে, দুপুরে খেয়ে মনমরা হয়ে শুয়ে আছেন।
একটা কথাই কানে বাজছে তার-
কি হবে এতো টাকা দিয়ে?
এখন হিসাবতো একাই দিতে হবে।

আসর,মাগরিব,এশা তিনি মসজিদে গিয়েই পড়েন। আজ এশা শেষ করে বসে আছেন মসজিদে। ভাবছেন তার ড্রাইভার, দারোয়ান আর এমন ছোট পেশায় জড়িত পরিচিত মুখ গুলোর কথা। আর সাথে সাথে মনে করছেন সেই বাক্য – কি হবে এতো টাকা দিয়ে?
মসজিদ থেকে বের হওয়ার সময় একজন নামাজি ঝালমুড়ি বিক্রেতাকে দেখে প্রশ্ন করলেন –
আপনি কি অনেক টাকাওয়ালা হওয়ার স্বপ্ন দেখেন না?
ঝালমুড়ি ওয়ালাঃ না স্যার।
তবে হ একসময় দেখতাম। অহন আর দেহি না।
অনেক চিন্তা কইরা দেখলাম, পোলা মাইয়া যা চাইবো তা সাথে সাথে দিয়া দিতে পারলে হেইডার মইধ্যে আর মজা থাকে না, কোন সময় গর্ব করার কিছু থাকে না। বড় পোলাডা ঢাকা ভার্সিটিত টিকসে, দোয়া কইরেন স্যার।
আমার পোলায় একসময় বড় অফিসার অইলে আমি গর্ব করতে পারমু,আমার বৌ,আমার পোলা মাইয়া সবতে গর্ব করতে পারবো যে, ‘হালাল খাওয়া শইল আমাগো’।  এইডার চেয়ে বড় পাওয়া আর কি আছে স্যার? বড় কিছু অই আর না অই হালালতো খাই!
আর স্যার,
অনেক ভাইব্বা দেখছি, ইচ্ছা করলে বা চেষ্টা করলে দুনিয়া পাওন যাইবো না কিন্তু ইচ্ছা আর চেষ্টা করলে আখেরাত পাওন যাইবো।

মুখ ভর্তি হাসি দিয়ে আরো বলে উঠলো-
স্যার, যেইডার ওয়ারেন্টি গ্যারান্টি নাই হেইডা নিয়া ভাইববা লাভ কি?
এজন্য পয়সাওয়ালা হওনের চিন্তা বাদ দিসি।

সরওয়ার সাহেব বাড়ির দিকে না গিয়ে মসজিদে
প্রবেশ করলেন। সিজদা দিয়ে কান্না জুড়ে দিলেন-
হে খোদা,
আমাকে মাফ করুন।
আমার শরীর হারামে পরিপূর্ণ।
আমার সন্তান, আমার স্ত্রীর শরীর হারামে পরিপূর্ণ।
আজ সাজিদ সাহেবের মতো আমার প্রাণপাখি উড়ে গেলে এ জবাব কিভাবে দিতাম খোদা?
খোদা, আমার দ্বারা কত মানুষ যে, বঞ্চিত হয়েছে তার সংখ্যাও আমার জানা নেই।
খোদা, আমাকে এই নিন্ম আয়ের ঝালমুড়ি ওয়ালার জীবন দান করুন, যেনো আমি গর্ব করে বলতে পারি ‘আমি হারামখোর না’।
খোদা, আমার পরবর্তী প্রজন্মকে এমন এক জীবন দিন, তারা যেনো বলতে পারে ‘আমি হারামখোর না’।
খোদা, আমি নামাজ পড়েও আপনার নাফরমানী করেছি,আমাকে মাফ করুন।
খোদা, আমি দাঁড়ি রেখেও আপনার নাফরমানী করেছি, আমাকে মাফ করুন।

লেখকঃ
শামসুল আরেফীন
arefin.musafir123@gmail.com

Sharing is caring!





More News Of This Category


বিজ্ঞাপন


প্রতিষ্ঠাতা :মোঃ মোস্তফা কামাল
◑উপদেষ্টা মহোদয়➤ সোহেল সানি
◑নজরুল ইসলাম মিঠু ◑তারিকুল ইসলাম মাসুম ◑এডভোকেট হুমায়ুন কবির(আইন উপদেষ্টা)
প্রধান সম্পাদক : মোঃ ওমর ফারুক জালাল

সম্পাদক: মোঃ আমিনুল ইসলাম(আমিন মোস্তফা)

নির্বাহী সম্পাদক: শফি মাহমুদ

বার্তা ও বানিজ্যিক সম্পাদক: বজলুর রহমান
প্রধান প্রতিবেদকঃ লাভনী আক্তার

ইমেইল:ajsaradin24@gmail.com

টেলিফোন : +8802-57160934

মোবাইল:+8801725-484563, বার্তা সম্পাদক+8801716-414756
টপ